কীস্টোন পাইপলাইন প্রকল্প বাতিল

গত শুক্রবার, নভেম্বর ৬ তারিখে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা কীস্টোন পাইপলাইন প্রকল্প বাতিল করেন। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য ছিল কানাডার আলবার্টা প্রদেশের বালু থেকে আহরিত তেল পাইপলাইনের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যে পরিশোধন ও বিপণনের জন্য প্রেরণ করা।

পরিবেশবাদীরা প্রথম থেকেই এই প্রকল্পের বিরোধিতা করে আসছিল। তাঁরা দৃষ্টি আকর্ষণ করছিল যে, প্রথমত, বিশ্বে যখন জীবাশ্ম-জ্বালানী থেকে নবায়নযোগ্য জ্বালানীতে উত্তরণের কর্তব্য সমুপস্থিত, সে পরিস্থিতিতে বালু থেকে তেল আহরণ ও পরিশোধনের এই সম্পসারিত প্রয়াস মোটেও সঙ্গতিপূর্ণ নয়। দ্বিতীয়ত, এই পাইপলাইন যুক্ত্ররাষ্ট্রের একাধিক রাজ্যের সংবেদনশীল এবং সংকটাপন্ন পরিবেশসম্পন্ন এলাকার উপর দিয়ে যাবে এবং ফলে তা পরিবেশের জন্য বিশেষ ঝুঁকিপূর্ণ হবে। তৃতীয়ত, বিশ্বে এমনিতেই তেল উৎপাদনে বাহুল্য পরিদৃষ্ট হচ্ছে, যে কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বিপুলভাবে হ্রাস পেয়েছে। এমতাবস্থায় তেলের নতুন ঝুঁকিপূর্ণ উৎস অনুসন্ধান ও ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পর হলেও ওবামা প্রশাসন যে শেষাবধি কীস্টোন পাইপলাইন প্রকল্প সম্পর্কে পরিবেশবাদীদের এসব যুক্তি গ্রহণ করেছে, তাতে বেন আনন্দিত।

বেন আরও আনন্দিত এ কারণে যে, প্রেসিডেন্ট ওবামা কীস্টোন বতিলের সিদ্ধান্তকে শীঘ্র প্যারিসে অনুষ্ঠিতব্য জলবায়ু সংক্রান্ত সম্মেলনের লক্ষ্যের সাথে সম্পর্কিত করে দেখেছেন। তিনি উল্লেখ করেছেন যে, প্যারিস জলবায়ু সম্মেলনের লক্ষের সাথে কীস্টোন প্রকল্প অনুমোদন সংগতিপূর্ণ হতো না। তিনি  আশা প্রকাশ করেছেন যে, কীস্টোন প্রকল্প বাতিলের ফলে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে বিশ্ব সংগ্রামে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃস্থানীয় ভূমিকা পালন সুগম হবে।

বেন প্রেসিডেন্ট ওবামার এসব অভিমত ও ঘোষণাকে স্বাগত জানায়। যুক্ত্ররাষ্ট্র পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম উষ্ণতা বৃদ্ধিকারক গ্যাস উতগীরক দেশ। যুক্ত্ররাষ্ট্রের  উদ্যোগী ও নেতৃস্থানীয় ভূমিকা ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে সংগ্রাম সফল হওয়া কঠিন। বেন আশা করে যে, প্রেসিডেন্ট ওবামার এই সিদ্ধান্ত প্যারিস সম্মেলনে পক্ষে আরও গতিবেগ সৃষ্টি করবে এবং বিশ্ব একটি কার্যকর জলবায়ু চুক্তিতে উপনীত হতে পারবে।

তবে মনে রাখা প্রয়োজন যে, কীস্টোন প্রকল্পের চূড়ান্ত মীমাংসা হয়ে গেছে তা এখনও বলা যাবে না, কেননা যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলকান দলের নেতারা ঘোষণা দিয়েছেন যে, সুযোগ পেলেই তাঁরা এই প্রকল্প অনুমোদন করবেন। কাজেই পরিবেশবাদীদের সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে।

প্রেসিডেন্ট ওবামা কর্তৃক কীস্টোন প্রকল্প বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা সম্পর্কে তথ্য ও চিত্রের জন্য দেখুন।

Leave a Comment